খবরের বিস্তারিত...


হলদিয়ায় শহীদ লিয়াকত স্মৃতির সংংবর্ধনা ও বৃত্তি প্র্ররদাান সম্পন্ন

জুলাই 20, 2018 সাম্প্রতিক খবর

রাউজান হলদিয়া জোনের শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরিক্ষার সংবর্ধণা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্টিত হয়েছে।আজ শুক্রবার বিকালে আমিরহাট ট্যালেন্ট প্লাস মডেল স্কুলে আয়োজিত অনুষ্টানে সভাপতিত্ত করেন সংগঠক মুহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন সুমন।অনুষ্টান বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক তরুন শিক্ষানুরাগী মুহাম্মদ মমতাজ উদ্দিনের সঞ্চালনায় এতে উদ্বোধক ছিলেন মুক্তিযোদ্বা আব্দুল কুদ্দুছ মাষ্টার।অতিথি ছিলেন শহীদ লিয়াকত স্মৃতি সংসদের উপদেষ্টা মৌলানা আহমদ হোসেন রেজভী, রাউজান প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এম বেলাল উদ্দিন,জামাল উদ্দিন মাষ্টার, মাষ্টার শামসুল আলম,মুহাম্মদ শাহাব উদ্দিন,মুহাম্মদ দিদারুল আলম,মুহাম্মদ জুবায়েদ। বক্তব্য রাখেন মাষ্টার আবু তৈয়ব,মৌলানা মোরশেদ রেজা,অনুষ্টান সচিব জমির হোসাইন সানি,মুহাম্মদ ইদ্রিছ,মুহাম্মদ সাদ্দাম,মুহাম্মদ রাকিব,মুহাম্মদ আলী হায়দার আবির,মুহাম্মদ জাহেদুল আলম,মুঃ রিফাত,মুহাম্মদ রবিউল ইসলাম জয়,মুহাম্মদ কায়েস প্রমুখ।এতে ২৩ জন সাধারণ, ৪ জন ট্যালেন্টপুল বৃত্তি প্রাপ্ত সহ মোট ২৭ জনকে সম্মামনা ক্রেস্ট,সনদ ও নগদ অর্থ এবং হলদিয়ার বিভিন্ন স্কুল মাদ্রাসার গরির ও মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়।বক্তারা বলেছেন শহীদ লিয়াকত স্মৃতি সংসদ মেধা বৃত্তির মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্কুল-মাদ্রাসার শত-শত অংশ গ্রহনকারী ছাত্র-ছাত্রী মেধা বিকাশে গুরুত্তপুর্ণ ভূমিকা পালন করে চলছে।বক্তারা বলেন অভিভাবকদের উচিৎ ছেলে হওক আর মেয়ে হওক ঐ ছেলে মেয়েদের একটি লক্ষ্যকে সামনে রেখে ভাল লেখাপড়া করার সূযোগ দেওয়া।কারন একজন ভাল ছাত্র-ছাত্রীর ভবিষ্যত নির্বর করছে সচেতন অভিভাবক আর দায়িত্তবান ভাল শিক্ষকের উপর।গ্রামের অভিভাবকরা মনে করেন মেট্রিক কিংবা ইন্টারই সর্বশেষ লেখাপড়া।এদের সচেতন করতে শিক্ষক ও স্থানীয় শিক্ষিত ব্যাক্তিদের এগিয়ে আসতে হবে।তারা বলেন ভবিষ্যতের টার্গেট ও লক্ষ্য নিয়ে আগাতে হবে আমাদের।কারন প্রতিযোগিতার বিশ্বায়নে টিকে থাকতে হলে মেধা চর্চা ও প্রচুর জ্ঞানের দরকার।বক্তারা লেখাপড়ার পাশাপাশি সমাজের গরিব অসহায়দের জন্য কাজ করার আহবান জানান॥

Comments

comments

Related Post